শিরোনাম
জামালপুর রেলওয়ে ওভারপাসে আরো ১৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিলেন প্রধানমন্ত্রী, ব্যয় দাড়ালো ৪৫০ কোটি টাকা ঢাবির ‘খ’ ইউনিটে প্রথম রাজেন্দ্র কলেজের নাহনুল কবির নুয়েল দেশের গন্ডি পাড়ি দিয়ে আন্তর্জাতিক পরিসরে সম্মানিত তাহসীন বাহার মাদকাসক্তি রোধে পারিবারিক বন্ধন দৃঢ় করতে হবে: জেলা প্রশাসক কুসিক নির্বাচনের বিজয়ী প্রার্থীদের গেজেট প্রকাশ আগামীকাল প্রকাশ করা হচ্ছে ঢাবির ‘খ’ ইউনিট অর্থাৎ মানবিক বিভাগে ভর্তি ফল কুমিল্লায় পিকআপে মাদক পরিবহনের সময় ১০০ কেজি গাঁজাসহ আটক ১ টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ কলেজছাত্রী ফারিহার পাবনা আমিনপুরে ১কেজি গাঁজাসহ আটক-১ টিকটিক বানাতে পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খুলে নিলো যুবক
সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরেও অনুষ্ঠিত হয়েছে মহাঅষ্টমী স্নানযাত্রা

সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুরেও অনুষ্ঠিত হয়েছে মহাঅষ্টমী স্নানযাত্রা

মোঃ এনামুল হক (খোকন) :

ধর্মাবলম্বী সম্প্রদায়ের মহাঅষ্টমী স্নানযাত্রা সারা দেশের ন্যায় চাঁদপুরে ও অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ৯ এপ্রিল শনিবার ভোর রাত থেকে পুরাণবাজার হরিসভা মন্দির সংলগ্ন মেঘনা নদীতে মন্ত্রপুতঃ হয়ে স্নান সম্পন্ন করে।
জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ জানান, গত ২ বছর বৈশ্বিক করোনার মহামারির কারণে সকল প্রকার ধর্মীয়  আচার-অনুষ্ঠান বন্ধ থাকায়, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মহাঅষ্টমী স্নান যাত্রাও বন্ধ ছিল। সকলের প্রার্থনা ছিল আমরা যেন করোনা থেকে মুক্তি লাভ করতে পারি। এ বছর করোনার প্রাদুর্ভাব কিছুটা কমে যাওয়ায়, আমরা শত বছরের ঐতিহ্যের স্নানযাত্রা অন্যান্য বছরের ন্যায় পুরাণবাজার হরিসভা মন্দির সংলগ্ন মেঘনা নদীতে ভক্তদের জন্য আয়োজন  করেছি।
নেতৃবৃন্দ আরো জানান,সনাতন ধর্মাবলম্বী ভক্তবৃন্দকে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য বজায় রেখে স্নানযাত্রায় অংশ নেয়ার জন্যে আমরা বিনীত ভাবে অনুরোধ  জানাই এবং শান্তিপূর্ণভাবে তা সম্পন্ন করা হয়েছে।
ভোরের আলো ফুটে উঠার শুরু থেকে সনাতন ধর্মাবলম্বিরাননিজেদের কে পাপ মুক্ত করতে ও পূর্নাতি লাভের মনোবাসনায় পুনারবাজার হরিসভা মন্দির সংলগ্ন মেঘনা নদীতে মন্ত্রঃপুতের মাধ্যমে স্নান করে পাপ মুক্ত হওয়ার জন্য মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনায় ব্রত হয়।ভোর থেকে চাঁদপুর জেলা সদর ও আশপাশের উপজেলা থেকে ভক্তরা সিএনজি, ব্যাটারী চালিত অটোবাইক নিয়ে হরিসভা মন্দির প্রাঙ্গনে ছুটে আসে মহাঅষ্টমীর স্নান করার জন্য।
প্রতিবছরই চৈত্রমাসের মহাষ্টমী তিথিতে পাপ মোচনের নিমিত্তে সনাতন ধর্মাবলম্বী সকল বয়সের নারী-পুরুষ গঙ্গাস্নান করেন মন্ত্রপুত হয়ে। তাদের বিশ্বাস, এই স্নানের মধ্য দিয়ে জানা অজানা সকল পাপ থেকে তারা মুক্তি লাভ করবেন। গত ৮ এপ্রিল শুক্রবার রাত ৯টা থেকে মহাষ্টমী তিথি শুরু হয়ে   ৯ এপ্রিল শনিবার রাত ৯টা পর্যন্ত তা বলবৎ থাকে। তাই শনিবারেই স্নান যাত্রা সম্পন্ন করার দিন হিসেবে নির্ঘন্ট করা হয়। মূলত দেশের বৃহৎ অষ্টমীর স্নান নারায়নগঞ্জের লাঙ্গলবন্দেই হয়ে থাকে ব্যাপকভাবে। কিন্তু সময় ও দূরত্বের কথা চিন্তা করে অনেকেই নদী বা খালের জলে স্নান সম্পন্ন করে থাকেন মনের ভক্তি আর বিশ্বাস নিয়ে। চাঁদপুরের অষ্টমীর স্নানে যেন কোনো ধরনের দূঘটনা না ঘটে সেজন্যরকঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্হা গ্রহন করা হয়।ভোর থেকে চাঁদপুর ফায়ার স্টেশন, পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব কর্তব্য পালন করেন।তবে এ বছর প্রশাসন কঠোর অবস্হানে থাকার কারণে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY SmartHostBD.com