শিরোনাম
জামালপুর রেলওয়ে ওভারপাসে আরো ১৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিলেন প্রধানমন্ত্রী, ব্যয় দাড়ালো ৪৫০ কোটি টাকা ঢাবির ‘খ’ ইউনিটে প্রথম রাজেন্দ্র কলেজের নাহনুল কবির নুয়েল দেশের গন্ডি পাড়ি দিয়ে আন্তর্জাতিক পরিসরে সম্মানিত তাহসীন বাহার মাদকাসক্তি রোধে পারিবারিক বন্ধন দৃঢ় করতে হবে: জেলা প্রশাসক কুসিক নির্বাচনের বিজয়ী প্রার্থীদের গেজেট প্রকাশ আগামীকাল প্রকাশ করা হচ্ছে ঢাবির ‘খ’ ইউনিট অর্থাৎ মানবিক বিভাগে ভর্তি ফল কুমিল্লায় পিকআপে মাদক পরিবহনের সময় ১০০ কেজি গাঁজাসহ আটক ১ টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ কলেজছাত্রী ফারিহার পাবনা আমিনপুরে ১কেজি গাঁজাসহ আটক-১ টিকটিক বানাতে পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খুলে নিলো যুবক
কোন প্রশিক্ষণ ছাড়াই তরমুজ চাষে চমক দেখালেন ব্রাহ্মণপাড়ার সোহেল 

কোন প্রশিক্ষণ ছাড়াই তরমুজ চাষে চমক দেখালেন ব্রাহ্মণপাড়ার সোহেল 

মোঃ সোহেল ইসলাম :

শুধু চাকরি কিংবা ব্যবসা নয় অদম্য ইচ্ছাশক্তি থাকলে কৃষি কাজেও সাফল্য অর্জন করা যায়। তারই প্রমাণ কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মহালক্ষীপাড়া গ্রামের শিক্ষিত  যুবক সোহেল হক।  সরেজমিনে দেখা যায়, নাজমুলের কৃষি খামারে রয়েছে তরমুজ, করোলা, ক্যাপসিকাম ও টমেটো  সব গুলো ফসল কোন প্রকার প্রশিক্ষক কিংবা কৃষি অফিসের পরামর্শ ছাড়াই সফল হয়েছেন সোহেল।  জানতে চাইলে তরুণ কৃষি উদ্যোক্তা সোহেল এ প্রতিনিধিকে জানান, আমি আমাদের এই উপজেলাতেই প্রথম ৪৮ শতক জমিতে তরমুজের বাণিজ্যিক ভাবে চাষাবাদ করি।  এতে আমি কোন প্রকার প্রশিক্ষণ এবং সহযোগিতা ছাড়াই ইনশাল্লাহ ভালো ফলাফল পেয়েছি। এই জমিতে আমার শুরু থেকে এখন এপর্যন্ত খরচ হয়েছে প্রায় ৫০ হাজার টাকা। আমি আমার জমি থেকে এ পযর্ন্ত তরমুজ বিক্রি করেছে প্রায় ১ লক্ষ টাকার মতো। জমিতে যে পরিমাণ তরমুজ বর্তমানে রয়েছে তার আনুমানিক বাজার দর ৪৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা হবে। তরমুজ চাষের পাশাপাশি আরো একটি ৩৬ শতক জমিতে করোলা চাষ করি। এতে আমার খরচ বাদ দিয়ে প্রায় ৬০ থেকে ৬৫ হাজার টাকা লাভ হবে। তরমুজ ও করোলার পাশাপাশি একই জমিতে ক্যাপসিকাম ও টমেটো চাষ করি। এটাতেও আমার প্রায় ২৫ হাজার টাকা লাভ হয়।  শুরু থেকে এখন পর্যন্ত এ ফসলগুলো ফলাতে বিভিন্ন সময় আমি  ইউটিউব এর মাধ্যমে বিভিন্ন পরামর্শ গ্রহণ করি। সব মিলেই আমার গ্রামের মাটিতে ইচ্ছে থাকলে পাশাপাশি পরিশ্রম করলে যে কোন ফসল চাষ করে লাভবান হওয়া যায় এটা আমি বিশ্বাস করি। সোহেল হকের প্রতিবেশী মহাম্মদ আবুল কাশেম বলেন, দক্ষিণ মহালক্ষী পাড়া গফুর মেম্বারের বাড়ির মৃত মাওলানা মালেকের ছেলে সোহেল হক শিক্ষিত যুবকের  কৃষিতে সাফল্য দেখে আমরা  খুবই আনন্দিত। আমরা চায় আামাদের গ্রামের যারা বেকার যুবক রয়েছে। তারা সোহেলের মত করে নিজেদের কর্মসংস্থান তৈরি করতে এগিয়ে আসেবেন

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Developed BY SmartHostBD.com